জাতীয় বিশ্বিবিদ্যালয়

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় রিলিজ স্লিপ ২০২৩ সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় রিলিজ স্লিপ ২০২২-২০২৩ । যারা অনার্স ভর্তির আবেদন করেছেন তাদের অবশ্যই রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে ভর্তির বিষয়টি পরিষ্কারভাবে জানা উচিত। আজকে আমরা রিলিজ স্লিপের আবেদন ও অন্যান্য বিষয় সম্পর্কে জানব ।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় রিলিজ স্লিপ ২০২৩

যে সকল প্রার্থী মেধা তালিকায় স্থান পাবে না, ভর্তি বাতিল করবে অথবা মেধা তালিকায় স্থান পেয়েও বরাদ্দকৃত বিষয়ে ভর্তি হবে না, সে সকল প্রার্থী সর্বোচ্চ পাঁচটি কলেজে আলাদাভাবে বিষয় পছন্দ নির্ধারণ করে রিলিজ স্লিপের জন্য আবেদন করতে পারবে।

কারা কারা আবেদন করতে পারবেন

√ যারা ১ম ও ২য় মেধা তালিকায় স্থান পায় নি ।

√  যারা প্রাপ্ত বিষয়ে পড়তে ইচ্ছুক নয় তারাও রিলিজ স্লিপ এর মাধ্যমে অন্য কলেজে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের পূর্বে যেসকল বিষয় জানা জরুরী

∎ রিলিজ স্লিপের আবেদন অনলাইনে করতে হবে।

∎ বাংলাদেশের যেকোন জেলার, যেকোন সর্বোচ্চ পাঁচটি কলেজে নির্বাচন করা যাবে ।

∎ নিজ বিভাগ ব্যতীত অন্য বিভাগের কোন বিষয়ের জন্য রিলিজ স্লিপ আবেদন করা যাবে না । যেমন : ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের কোন আবেদনকারী মানবিক বিভাগের কোন বিষয়ে আসতে পারবেন না ।

∎ আবেদনকারীরা সরকারী ও বে-সরকারী উভয় কলেজ নির্বাচন করতে পারবেন ।

অন্যান্য বিষয় সম্পর্কে জানব ।

 একনজরে
আবেদন শুরু :
শেষ তারিখ : 
আবেদনের লিংক : nu.ac.bd/admission

সাধারন প্রশ্ন ও উত্তর

✪ রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে কি  পূর্বের কলেজে পূনরায় আবেদন করতে পারব ?

– হ্যাঁ আবেদন করা যাবে। আপনি পূর্বের কলেজ সহ মোট পাচটি কলেজে নতুন করে বিষয় নির্বাচন করে আবেদন করতে পারবেন ।.

✪  রিলিজ স্লিপের আবেদন ফরম সংগ্রহ করার উপায় কি ?

– কলেজ কতৃক  রিলিজ স্লিপের আবেদন ফরম দেওয়া হয় না । জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে সংগ্রহ করতে হবে ।

✪ প্রশ্ন-: কোন পাচটি কলেজ নির্বাচন করতে হবে?

-আপনার পছন্দ অনুযায়ী বাংলাদেশের যে কোন প্রান্তের সর্বোচ্চ  পাচটি কলেজ নির্বাচন করতে পারবেন ।

✪ রিলিজ স্লিপের ফলাফল কখন প্রকাশিত হয়?

– অনলাইনে আবেদন শেষ হওয়ার ৫-৭ দিনের মধ্যেই রিলিজ স্লিপের ফলাফল প্রকাশিত হয় ।

✪ রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে আবেদন করলে চান্স পাওয়ার নিশ্চয়তা কতটুকু?

– জেলা শহরের কলেজগুলোতে শূন্য আসন সংখ্যা খুবই কম অপর দিকে উপজেলা পর্যায়ের কলেজগুলো অনেক বেশি আসন খালি থাকে তাই আবেদন করার সময় এই বিষয়টি গুরুত্ব দিলে ভর্তির নিশ্চয়তা অনেকগুন বৃদ্ধি পায় ।

✪  রিলিজ স্লিপ পূরণ করার জন্য কি কি লাগবে ?

-রোল নম্বর ও পিন নম্বর দিয়েই অনলাইনে আবেদন করা যাবে।

✪ কোন কলেজে কোন বিষয়ে কতগুলো সিট আসন খালি আছে, তা কিভাবে জানবো?

– অনলাইনে রিলিজ স্লিপ ফরম পূরণ করার সময় কলেজের পাশে কয়টা করে আসন খালি আছে, তা দেখা যাবে ।

 ২য় মেরিট লিস্ট-এ যে সাবজেক্ট আসবে / এসেছে, সেটাতে ভর্তি হবো না, রিলিজ স্লিপ নিতে পারবো?

উত্তরঃ হ্যাঁ, পারবেন ।

✪ রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে যে বিষয় পাবো তা কি পরিবর্তন করা যাবে ?

– না, রিলিজ স্লিপে যে বিষয় পাবেন সেই বিষয়েই আপনাকে ভর্তি হতে হবে ।

✪ যদি রিলিজ স্লিপে আবেদন করার পর যদি কোন কলেজে ভর্তি  সুযোগ না পাই তাহলে কি করব?

– ১ম রিলিজ স্লিপে ভর্তি হতে না পারলে ২য় রিলিজ স্লিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

রিলিজ স্লিপে আবেদন করার শর্তাবলী  ফরম পূরণ প্রক্রিয়া

  •  রিলিজ স্লিপে আবেদনের জন্য প্রার্থীকে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে (www.admissions.nu.edu.bd অথবা nu.edu.bd/admissions) Honours tab-এ গিয়ে Honours Applicant’s Login অপশনে ক্লিক করে আবেদন ফরমের রােল নম্বর ও পিন এন্ট্রি দিতে হবে। এক্ষেত্রে প্রার্থীর নাম ও অন্যান্য তথ্যসহ | রিলিজ স্লিপের আবেদন ফরম ওয়েবসাইটে প্রদর্শিত হবে।
  •  রিলিজ স্লিপে আবেদনের জন্য College Selection Option এ গিয়ে আবেদনকারী তার পছন্দ অনুযায়ী কলেজ Select করলে ঐ কলেজের বিষয়ভিত্তিক শূন্য আসনের তালিকা ও তার Eligible বিষয়ের তালিকা দেখতে পাবে। এ পর্যায়ে আবেদনকারী তার Eligible বিষয়ের তালিকা থেকে নতুন করে পছন্দক্রম নির্ধারণ করে এন্ট্রি দিবে। এভাবে একজন আবেদনকারী তার পছন্দ অনুযায়ী সর্বোচ্চ পাঁচটি কলেজে পর্যায়ক্রমে বিষয় পছন্দক্রম নির্ধারণ করে এন্ট্রি দিয়ে রিলিজ স্লিপের আবেদন ফরম পূরণ করবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker